লাল সবুজের ঝাণ্ডা হাতে যুব টাইগাররা বিশ্বকাপের ফাইনালে।

লাল সবুজের ঝাণ্ডা হাতে যুব টাইগাররা বিশ্বকাপের ফাইনালে।
Spread the love

পুরো বাংলাদেশ জয়ের আনন্দে উন্মাতাল,কারণ তাদের স্বপ্ন সারথীরাই যে বিশ্বকাপের ফাইনালে শীর উঁচু করে।ফাইনালে যাওয়ার পথে নিউজিল্যান্ড যুবাদের বিপক্ষে টসে জিতে আকবর আলী বল তুলে দিলেন গতির আর সুইং সম্রাট শরিফুলের হাতে। প্রথম বল থেকেই যেন বাংলাদেশের বোলাররা বলকে কথা বলিয়েছেন নিজেদের মত করে শরিফুল,সাকিব এর গতি আর শামীম, রকিবুলের স্পিনিং বেলকি যেন কিং কোবরা সাপের মত ফণা তুলেছিল ২২গজের উইকেটে।

দিশেহারা কিউইরা পুরো ৫০ ওবার মাঠে ছিল টিকই তবে খুব একটা পুক্ত হয়নি ওদের রানের চাকা।২১২রানেই প্যাকেট বন্দী কিউই যুবারা।লক্ষ যখন ২১২ ব্যাট হাতে নামলেন তামিম,ইমন। ওদের ৩২ রানের মধ্যেই ফিরে যাওয়া বাংলাদেশ শিবিরে দুশ্চিন্তা ফেললে ও হৃদয় আর জয়ের হৃদয় জয় করা ব্যাটিং ম্যাচে জয়ের দিকে এগিয়ে নিয়ে গেছে বাংলার যুবাদের।ওদের ৬৮ রানের জুটি জয়ের ভিত্তি করে দিয়ে গেছে মজবুত। বিশ্বকাপে খেলার আগেই রান মেশিন উপাধী পাওয়া হৃদয় এর ব্যাটিং জুগিয়েছে আশা,ব্যাটের ভাষায় হয়ত বলতে চেয়েছেন ক্রিকেট পাগল জাতি হৃদয়ের মণিকোঠায় রাখ আমরা জায়গা আসতেছি আমি রানের বরণঢালা সাজিয়ে তোমাদের জন্য। ৪০রান করে তাওহিদ হৃদয় ফিরে গেলে ও জয়ের জয়সুচক শতক খালি হাতে ফেরায়নি আমাদের। তাঁর ১২৭ বলে ১০০ রানের নান্দনিক ইনিংস আমাদের দিয়েছে ইতিহাস গড়ার হাতছানি। জয়ের সাথে গত ম্যাচের পারফর্মারর শাহাদাতের ম্যাচ জয়ী পার্টনারশিপ জয়ের বন্দরে নিয়ে যায় আমাদের।শাহাদাত অপরাজিত থেকেই মাঠ ছেড়েছেন ১৬ কোটি জনতাকে জয়ের আনন্দে ভাসিয়ে।বাংলাদেশ জিতেছে ৬ উইকেটের বিশাল ব্যবধানে।

এখন শুধু অপেক্ষার প্রহর গোণা জিততে কি পারবে টাইগার যুবরা ঐ সোনালী ট্রফিটা। উত্তরটা তুলে রাখলাম রোববারের ভারতের সাথে ফাইনাল পর্যন্ত।বলে রাখি ক্রিকেট বিশ্ব হারার আগে হার মানতে রাজি না সংগ্রামী এই জাতি।লাল সবুজ পতাকাটা উড়বে বিশ্বমঞ্চে, আর বুকে হাত রেখে গাইব “আমার সোনার বাংলা আমি তোমায় ভালোবাসি”।

admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *