রোগী সুস্থ, কিন্তু শরীরে করোনা পজিটিভ

রোগী সুস্থ, কিন্তু শরীরে করোনা পজিটিভ
Spread the love

করোনাভাইরাসে উৎপত্তি চীনে এখন অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে আসতেছে মৃতের সংখ্যা এবং আক্রান্তের সংখ্যা। কিন্তু নতুন একটি খবর দিল চীনের চিকিৎসকরা। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আনতে পারলেও নতুন একটি সংকটের মুখোমুখি চীন।

দেখা যাচ্ছে দেশটিতে করোনাভাইরাস থেকে সেরে উঠা অনেকে রোগীর শরীরে এখনো করোনাভাইরাস পাওয়া যাচ্ছে। প্রথম দিকে আক্রান্ত হওয়া কয়েকজন রোগীর সুস্থ হয়ে ২ মাস চলে গেছে কিন্তু এখন আবার তাদের শরীরে করোনা পজিটিভ পাওয়া গেছে। অনেক রোগী সেরে উঠার করোনা পরীক্ষা করে নেগেটিভ আসছে কিন্তু ওই সব রোগীর শরীরে এখন করোনা পজিটিভ আসছে।

পৃথিবীর মধ্যে সর্ব প্রথম চীনের উহানে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী পাওয়া যায়। গেল ১১ জানুয়ারী চীনে প্রথম মৃত্যু ঘটে করোনায় আক্রান্ত হয়ে। ওই মারা যাওয়া ব্যাক্তি ছিলেন চীনের উহানের ৬১ বয়সী একজন বৃদ্ধ। আর আজকে এখন পর্যন্ত এই মহামারী করোনাভাইরাস আক্রান্ত হয়ে সারা বিশ্বে মারা গেছেন ২ লাখের উপর মানুষ।

পৃথিবীর ২১০টি দেশে করোনার সংক্রমণ পাওয়া গেছে। তবে চীনে ধীরে ধীরে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে উঠতেছে। গত টানা তিন দিন করোনায় দেশটিতে কেউ মারা যায়নি। তবে নতুন একটি খবর দিলেন চীনের চিকিৎসক ও করোনা নিয়ে যেসব বিজ্ঞানী কাজ করেছেন তারা।

দেশটিতে করোনা সেরে উঠা অনেক রোগীর শরীরে আবার করোনাভাইরাস পাওয়া গেছে।প্রথমদিকে আক্রান্ত হওয়া অনেকের ২ মাস পেরিয়ে গেলেও নতুন করে তাদের শরীরে করোনা পজিটিভ আসছে। চীনের চিকিৎসকরা বলছেন করোনা থেকে সেরে উঠার ৭০ দিন পর আবার ওই মানুষদের পরীক্ষা করে করোনাভাইরাস পজিটিভ পাওয়া যাচ্ছে।

অনেকে সুস্থ হওয়ার ৫০ – ৬০ দিন পরীক্ষা করে করোনাভাইরাস পাওয়া যাচ্ছে। শুধু চীনে নয় , দক্ষিণ কোরিয়ায় অন্তত ১ হাজার রোগী সুস্থ হওয়ার চার সপ্তাহ বা তার বেশি সময় পর পরীক্ষা করে দেখা গেছে ওদের শরীরে করোনা পজিটিভ। ইতালিতেও অনেক রোগী সুস্থ হওয়ার ১ মাস পর করোনা পরীক্ষায় ফলাফল পজিটিভ এসেছে।

তবে এমনটা কেন হচ্ছে তা কোনো বিজ্ঞানী বলতে পারতেছেন না। চীনের জিনিনতান হাসপাতালের প্রেসিডেন্ট ঝ্যাং দিংইউ বলেছেন, এই রকম রোগীর সংখ্যা দিন দিন বাড়তেছে। এটা নতুন সংকট তৈরি করবে পৃথিবীতে।

admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *