করোনাভাইরাস এর নতুন নামকরণ,কোভিড-১৯ নামে পরিচিত মরণব্যাধি ভাইরাসটি।

দিন দিন যেন ভয়াবহ রুপে আকার নিচ্ছে করোনাভাইরাস, এরই মধ্যে বিশ্ব সংস্থা এটির নতুন নাম দিয়েছে কোভিড-১৯। তাই এখন থেকে করোনাভাইরাসকে কোভিড-১৯ নামে ডাকা হবে।

চীন যেন তাঁদের ইতিহাসের সবথেকে কঠিন সময়ই পার করতেছে। পুরো চীনের সব রাজ্যে জরুরী অবস্থা অনির্দিষ্ট কালের জন্য চলতেছে,রাস্তাঘাট একেবারে জন মানবহীন।এখন পর্যন্ত চায়নাতে কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত ৬০,০০০ হাজারের বেশি মানুষ, আর মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১,৩০০জন ছাড়িয়েছি, যার সংখ্যা অস্বাভাবিক হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে। শুধু মাত্র একদিনে চীনের উহান রাজ্যে ২৪২ জনের মৃত্যু কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়ে। চীন সহ পুরো বিশ্বের বড় বড় সব নেতারা এক হয়ে সবার মেধাকে কাজে লাগিয়ে চেষ্টা করা হচ্ছে এটাকে মোকাবেলার।

এরই মধ্যে হংকং, সিঙ্গাপুর এ বড় আকারে ধরা পড়েছে কোভিড-১৯ ভাইরাসটি।প্রত্যেকটা দেশের বিমানবন্দর, সীমান্ত বর্তী যাতায়তের জায়গাতে সবাই মেডিকেল টিম বসিয়ে যাত্রীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে নিজ নিজ দেশে ঢোকার অনুমতি দিতেছে। কোনো যাত্রীর শরীরে যদি কোভিড-১৯ ভাইরাস এর সম্ভাবনা দেখা দেয় তাহলে সঠিক চিকিৎসা দেওয়ার জন্য নিদিষ্ট স্থানে রেখে তার পরিচর্যা করা হবে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO) এক বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে কোভিড-১৯ ভাইরাস এর প্রতিষেধক আবিষ্কার করতে ১৮ মাস এর মত সময় লাগতে পারে।পুরো বিশ্বে জরুরী অবস্থা জারি করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *